পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর আয়বর্ধক কর্মসূচী হিসাবে উন্নত জাতের বাঁশ উৎপাদন প্রকল্প।

 

প্রকল্পের নামঃ

 

পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের অনগ্রসর জনগোষ্ঠীর আয়বর্ধক কর্মসূচী হিসাবে উন্নত জাতের বাঁশ উৎপাদন

প্রকল্প পরিচালকের নামঃ

 

জনাব শাহীনুল ইসলাম, ভাইস-চেয়ারম্যান(যুগ্ম-সচিব), পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড

বাস্তবায়নকারী সংস্থাঃ

 

পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড

প্রকল্পের মেয়াদঃ

 

জুলাই ২০১৬ খ্রিঃ থেকে জুন, ২০২১ খ্রিঃ

মোট প্রাক্কলিত ব্যয়ঃ

 

জিওবি-২৩৭৮.০০ (লক্ষ টাকায়), মোট-জিওবি-২৩৭৮.০০ (লক্ষ টাকায়)

প্রকল্প এলাকাঃ

 

০৩(তিন) পার্বত্য জেলায় ২৬টি উপজেলা

  • রাংগামাটি পার্বত্য জেলাঃ রাংগামাটি সদর, কাউখালী, কাপ্তাই, রাজস্থলী, বিলাইছড়ি, জুরাছড়ি, বরকল, লংগদু, নানিয়ারচর ও বাঘাইছড়ি
  • খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলাঃ খাগড়াছড়ি সদর, দীঘিনালা, পানছড়ি, মাটিরাংগা, মানিকছড়ি, লক্ষীছড়ি, রামগড়, মহালছড়ি ও গুইমারা
  • বান্দরবান পাবর্ত্য জেলাঃ বান্দরবান সদর, লামা, আলীকদম, নাইখ্যংছড়ি, রুমা, থানচি ও রোয়াংছড়ি

 

প্রকল্প গ্রহনের প্রেক্ষাপটঃ

 

পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চল হচ্ছে বাংলাদেশের সবচেয়ে অনগ্রসর ও দেশের অন্যান্য এলাকা থেকে আলাদা একটি অঞ্চল। দেশের মোট আয়তনের দশ শতাংশ এলাকা হচ্ছে পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চল এবং এর ৯০% শতাংশ এলাকা হচ্ছে পাহাড় ও বনাঞ্চল দ্বারা পরিবেষ্টিত। অত্র এলাকা জনগন প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে এলাকায় বেষ্টিত বনাঞ্চলের বাঁশ ও কাঠের উপর নির্ভরশীল। পাবর্ত্য এলাকার কাচালং, রাইখ্যং, সাংগু ও মাতামুহুরী ইত্যাদি নদীবিস্তৃত এলাকায় অধিকাংশ বাঁশ উৎপাদন হয়। এই এলাকায় মুলি বাঁশের উৎপাদন সবচেয়ে বেশি। তবে ভূমি দখল, নির্বিচারে বন উজার, ভূমির ব্যবহারের ধরণ পরিবর্তন, অবৈজ্ঞানিকভাবে পদ্ধতেতে ভূমি ব্যবস্থাপনা, ফিবছর স্থান পরিবর্তনের মাধ্যমে চাষ পদ্ধতির ফলে বন উজার এইসব কারণে প্রতি বছর ২.৬ শতাংশ হারে বাঁশ উৎপাদন কমে যাচ্ছে। এছাড়াও ২০০৬ সাল থেকে সাম্প্রতিককালের বাঁশের ফুল হওয়ার কারণে বাঁশের উৎপাদন অনেক কমে যাচ্ছে।

স্বাধীনতার প্রায় দুই দশকের উর্ধ্বে সময় ধরে অত্রাঞ্চলে যে অস্থির পরিবেশ ছিল তা ১৯৯৭ইং সালে পার্বত্য চুক্তির স্বাক্ষরের মাধ্যমে অবসান হয়। অত্রাঞ্চলে বিভিন্ন সংঘাটের কারণে যে ক্ষতি হয়েছে এবং অত্রাঞ্চলের জনগণ উন্নয়নের জন্য যে পিছিয়ে ছিল তা  থেকে মুক্ত হওয়ার জন্য পার্বত্য চু্ক্তি পরবর্তী সময়ে আর্থ-সামাজিক বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের মাধ্যমে সাধারণ জনগণের কল্যানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান কাজ করে যাচ্ছে। যেহেতু অত্রাঞ্চল পূর্ব থেকে দ্বন্দ্ব-সংঘাতের কারণে পিছিয়ে পড়া একটি অঞ্চল তাই এই এলাকার পিছিয়ে পড়া জনগণের প্রতি বিশেষ সুবিধা প্রদানের জন্য বিভিন্ন প্রকল্প ও কার্যক্রম গ্রহন করার লক্ষে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড কাজ করে যাচ্ছে এবং “পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে অনগ্রসর জনগোষ্ঠির আয়বর্ধনমূলক কর্মসূচি হিসাবে উন্নত জাতের বাঁশ উৎপাদন” শীর্ষক প্রকল্পটি বাস্তবায়নের জন্য প্রস্তাবনা গ্রহন করেছে।

মোট সুবিধাভোগির সংখ্যাঃ

 

১৩০০০জন

উদ্দেশ্যঃ

 

সাধারণ

  • বাঁশ চাষ উৎপাদন প্রক্রিয়া উন্নয়নের মাধ্যমে বাঁশ উৎপাদন বৃদ্ধি করা
  • ক্ষুদ্র কুটির শিল্প স্থাপনের জন্য কাঁচামাল হিসেবে বাঁশ উৎপাদন বৃদ্ধি করা
  • ক্ষুদ্র কুটির শিল্প উদ্যোক্তাদের সহযোগিতা বৃদ্ধি করা এবং পার্বত্য অঞ্চলে পিছিয়ে পড়া জনগণের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন করা

 

সুনির্দিষ্ট উদ্দেশ্য

  • উপকারভোগিদের বাঁশ চাষ পদ্ধতি, বাণিজ্যিকভাবে বাঁশ চাষ এবং পাহাড়ী এলাকায় বাগান ব্যবস্থাপনায় দক্ষ করে গড়ে তোলা
  • পার্বত্য এলাকার নারীদের আয়বর্ধনমূলক কাজের সাথে সম্পৃক্ত করা

প্রকল্পের প্রধান উপাদানসমূহঃ

 

  • তিন পার্বত্য জেলায় ১৩০০০টি বাঁশ বাগান সৃজন
  • উপকারভোগিদের  মাঝে ৩০৫৫০০০টি বাঁশের চারা বিতরণ
  • ২৬০টি ক্ষুদ্র কুটির শিল্প স্থাপনে সহায়তা প্রদান
  • ১৩০০০জন উপকারভোগি এবং ২৬০জন উদ্যোক্তাকে প্রশিক্ষণ প্রদান

প্রকল্পটির সাথে ভিশন-২০২১, এসডিজি, ৭ম পঞ্চরার্ষিকী পরিকল্পনা এবং সরকারের ইশতেহারের সম্পর্ক

 

১) ভিশন-২০২১

  • জাতীয় অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখতে প্রকল্পের আয়বর্ধনমূলক কার্যক্রম পারিবারিক আয় বৃদ্ধি করবে

 

২) টেকসই উন্নয়ন

  • পারিবারিক আয় বৃদ্ধির মাধ্যমে লক্ষিত টেকসই উন্নয়নে দারিদ্র্য বিমোচন ও ক্ষুদামুক্ত বাংলাদেশ গড়তে দুর্গম এলাকায় এই প্রকল্পের কার্যক্রম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে
  • জেন্ডার সমতার ক্ষেত্রে এই প্রকল্পের ১০০% মহিলা বাগান সৃজনে সরাসরি সম্পৃক্ত। তাই এ প্রকল্পের মাধ্যমে অত্র এলাকায় জেন্ডার সমতা ও আয় সমতা নিশ্চিত হবে।

 

৩) ৭ম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা

  • ১৩০০০একর জায়গায় বাঁশ বাগান সৃজনের দ্বারা পরিবেশের ক্ষতি থেকে রক্ষা করবে

 

৪) সরকারী ঈশতেহার

  • জাতীয় ও রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে সর্বক্ষেত্রে পরুষের পাশাপাশি নারীদের সমান অধিকার নিশ্চিত করা
প্রকল্পের বিভিন্ন কার্যক্রমের ছবি  : ছবিসমূহ
কার্যক্রমের ভিডিও   ভিডিওসমূহ

 


Share with :

Facebook Facebook